টিকটকের করতে করতে জীবন গেল কিশোরীর

নোয়াখালী: টিকটক ভিডিও বানাতে গিয়ে গলায় ফাঁস পড়ে মৃত্যু হয়েছে এক কিশোরীর। এমনটিই ধারণা করছে তার পরিবার। 

বৃহস্পতিবার (৭ জুলাই) সন্ধ্যায় নোয়াখালীর খিলপাড়া ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম সানজিদা আক্তার (১১)। খিলপাড়া ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের শিবপুর গ্রামের মনজুরুল ইসলামের মেয়ে সে। স্থানীয় আবিরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী।

নিহতের মা কোহিনূর বেগম সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমাকে একটা পান দিয়ে নিজেও খায় সানজিদা। পরে আমি বিশ্রাম নিতে গেলে ঘুমিয়ে পড়ি। ধারণা করছি, এই ফাঁকে সে আলমারির ওপরে উঠে ওড়না দিয়ে ফাঁসির ভিডিও বানাতে যায়। পরে অসাবধানতাবশত গলায় ফাঁস পড়ে মারা যায় সে। মেয়ের টিকটক ভিডিও বানানোর নেশা ছিল। ওই নেশাই তাকে দুনিয়া থেকে নিয়ে গেলো।’

ইউপি সদস্য সাদ্দাম হোসেন বলেন, শুনেছি মেয়েটা কারো বাধা মানতো না। টিকটক ভিডিও করতে গিয়ে অনেকের বকাও খেয়েছে সে। বৃহস্পতিবার বিকেলের পর ঘরের আলমারির ওপর উঠে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ভিডিও করতে গিয়ে ফাঁসিতে ঝুলে যায়। তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. গিয়াস উদ্দিন বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। অভিযোগ না থাকায় মরদেহ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে থানায় মামলা হয়েছে অপমৃত্যুর।
Previous Post Next Post